এক্স গার্লফ্রেন্ড যখন বস (পর্ব-০৬)

| By Admin | Filed in: চটি কাব্য.

এক্স গার্লফ্রেন্ড যখন বস (পর্ব-০৫)

আমিঃ(আজ ভাবতেই কষ্ট হচ্ছে আমাদের দুই বছরের রিলেশনটা এভাবেই ভাজ্ঞতে হবে)
তারপর ও খান থেকে বাড়িতে ফিরব এমন সময় নেহার সাথে দেখা

নেহাঃমামা তোকে কি বললো
আমিঃনেহা তুই তো জানিস আমি মিমিকে কতটা ভালোবাসি
নেহাঃহুমম তা তো জানি
আমিঃসেটা আর থাকছে নারে..(মন খারাপ করে)
নেহাঃ….(সরি রনি আমার জন্য তোদের এই দিন দেখতে হচ্ছে)

আমিঃ(তারপর নেহাকে কিছু না বলে বাড়িতে চলে আসলাম)

১সপ্তাহ মধ্যে মিমির সাথে কোনো যোগাযোগ রাখিনি আর এই সপ্তাহ কলেজে ও যাইনি

আমার মাঃবাবা তোর কি হইছে বল তো
আমিঃতেমন কিছু না
মাঃতাহলে কলেজে যাস না কেন
আমিঃআজ যাবো(আজ না গেলে মা অন্য কিছু ভাবতে পারি তাই বললাম)
মাঃআচ্ছা ঠিক আছে তুই রেডি হয়ে খেতে আই
আমিঃওকে

তারপর ফ্রেশ হয়ে খেতে বসলাম এমন সময়
আশরাফ ফোন করল

আশরাফঃহেলো
আমিঃহুমম বল
আশরাফঃকই তুই
আমিঃবাড়ি কেন
আশরাফঃকেন মানে তুই কলেজে আসিস না কেন
আমিঃআজ যাবো
আশরাফঃআচ্ছা ঠিক আছে তারাতাড়ি আই
আমিঃওকে

তারপর খাবারের পর্ব শেষ করে কলেযে চলে গেলাম

আশরাফঃতোর কি হইছে বল তো কদিন কলেজে আসিস না আর আমাদের এক্সাম ও বেশি দিন তো আর নেই। এভাবে চলতে থাকলে মামা পরীক্ষায় জিরো পাবি
আমিঃসরি বন্ধু আর মিস করব না
আশরাফঃআচ্ছা চল ক্লাস রুমে যাই
আমিঃওকে

ক্লাসরুমে যাবার পর হঠাৎ লক্ষ্য করলাম
মিমির চেহারায় কেমন মলিন ভাব ফুটে উঠেছে। আমাকে দেখেই কি যেন বলতে চাচ্ছে কিন্তু স্যার জন্য বলতে পারছে না।মিমির এমন অবস্থা দেখে নেহা মিমিকে শান্তনা দিচ্ছে।স্যারের ক্লাস্টা কোনো রকম শেষ করে বাড়িতে চলে আসতে যাবো এমন সময় মিমি সামনে দাড়িয়ে

মিমিঃকোথায় পালাচ্ছো
আমিঃ……….
মিমিঃআমি কিছু জিজ্ঞেস করছি কোথায় পালাচ্ছো
আমিঃ….(কোনো কথা না বলে হাটা শুরু করলাম)

মিমিঃআচ্ছা তোমার কি সমস্যা সেটা তো বলবা।আর আমাকে দেখে এমন চুপ হয়ে আছো কেন(সামনে দাড়িয়ে)
আমিঃসরো আমার কাজ আছে যেতে হবে (মিমিকে সরিয়ে)
মিমিঃসেটা আমি আটকাবো না। কিন্তু আমার উত্তর চাই
আমিঃআমার কাছে কোনো উত্তর নেই(বলে বাড়িতে চলে আসলাম)

প্রথম দিন মিমিকে কোনো কোনো কিছুর উত্তর না দিয়েই বাড়িতে চলে আসলাম পরের দিন কলেজে বসে আনমনে মিমির কথা ভাবছিলাম হঠাৎ আশরাফের ডাকে ধ্যান ভাজ্ঞল

আশরাফঃ তুই কিন্তু কাজটা ঠিক করছিস না
আমিঃকোন্টা
আশরাফঃতুই মিমির সাথে কথা বলা কেন বন্ধ করে ফেলছিস
আমিঃতো কি হইছে
আশরাফঃমিমি তোর জন্য কতটা পাগল সেটা তুই ভালোই জানিস আর এখন বলছিস কি হইছে

আমিঃদেখ আশরাফ তুই আমার বন্ধু আছিস বন্ধুই থাক আমার প্যারসোনাল লাইফে কি করব না করব সেটা আমার ব্যাপার (রেগে)
আশরাফঃএখন হইতো তুই কাছে পেয়েও মুল্য বুঝতে পারছিস না যখন তোর থেকে হারিয়ে যাবে তখন বুঝতে পারবি মিমি তোকে কতটা ভালোবেসেছিলো
আমিঃ…….
আশরাফঃদেখ বন্ধু মেয়েটাকে কষ্ট দিস না। এখন মিমিও কলেজে কারোও সাথে কথা বলতে চাই না সবসময় কেমন মনমরা হয়ে থাকে। আর আমার জানা মতে তুইও ভালো নেই। কাজেই তোদের মাঝে ভুল বুঝাবুঝি থাকলে সমাধান করে ফেলিস (বলে আশরাফ চলে গেলো)

এভাবেই কিছুদিন চলে যাবার পর

ক্লাস শেষ করে আশরাফ সাথে আড্ডা দিচ্ছি
এমন সময় মিমির আগমন

মিমিঃকেমন আছো…?
আমিঃ……?
মিমিঃআমি জানি তুমিও ভালো নেই।, তাহলে কেন এমন করছো
আমিঃতুমি বাড়িতে চলে যাও
মিমিঃআজ ২ সপ্তাহ ধরে তুমি আমার ভালো ভাবে কথা বলছো না। ফোন নাম্বারটা ব্যাকলিস্টে ফেলে রেখেছো কেন করছো এসব (কান্না করে)
আমিঃমিমি আমি চাচ্ছি না আমাদের রিলেশনটা continue করতে তাই এমন করছি এবার বুঝতে পারছো
মিমিঃতুমি মিথ্যা কথা বলছো
আমিঃএটাই সত্যিই। এতদিন যা ছিলো সেটা পুরো নাটক ছিলো
মিমিঃমানে
আমিঃআশরাফ সাথে বাজি ধরে তোমার সাথে রিলেশনটা শুরু করছিলাম

(মিথ্যা বলে দিলাম)

মিমিঃতুমি মিথ্যা কথা বলছো। তোমার সম্পর্ক যদি মিথ্যা হত তাহলে অনেক আগেই শেষ করে দিতে কিন্তু আজ যে কথা বলছো সেটা আমি মানতে পারছি না

আমিঃবিশ্বাস না হলে আশরাফ কে জিজ্ঞেস করে দেখো(তারপর আশরাফ কে ইশারায় হ্যা বলতে বলাম)

মিমিঃআশরাফ ভাইয়া আপনি প্লিজ মিথ্যা কথা বলবেন না(করুন সুরে)
আশরাফঃহ্যা মিমি রনি যেটা বলছে সেটা সত্যিই
মিমিঃআপনিও মিথ্যা কথা বলছেন আমি বিশ্বাস করি না(কান্না করে)
আমিঃদেখো মিমি তোমার সাথে এতদিন যা কিছু হয়েছিল সেটা দূর স্বপ্নভেবে ভুলে যাও
মিমিঃআমাদের দুই বছরের সম্পর্ক তুমি কেন ভাজ্ঞতে চাচ্ছো(কান্না করে)
আমিঃকারন আমি তোমাকে ভালোবাসি না
মিমিঃএভাবে বলো না প্লিজ আমি মানতে পারছি না।তোমাকে যদি কেউ কিছু বলে? থাকে তাহলে সেটা আমাকে বলো..?তারপর ও তুমি এই সম্পর্কটা এভাবেই শেষ করো না

আমিঃতুমি কেন বুঝতে পারছো না আমি তোমাকে ভালো বাসি না। এতদিন যা করেছি শুধুমাত্র আশরাফের বাজিতে জিতার জন্য
মিমিঃতুমি আমার মাথাই হাত রেখে বলো তাহলে বিশ্বাস করব তুমি আমার সাথে এতদিন অভিনয় করেছো(মাথাই হাত রেখে)
আমিঃ….(না আমি পারব না মিমির মাথাই হাত রেখে মিথ্যা কথা বলতে)
মিমিঃকি হলো বলো চুপ হয়ে
গেলো কেন

আমিঃ……(আমার হাত সরিয়ে নিলাম)
মিমিঃআমি জানি তুমি আমার মাথাই হাত রেখে মিথ্যা কথা বলতে পারবে না (এরমধ্যে নেহা আসলো)
নেহাঃমিমি তোকে কতক্ষন ধরে খুজছি আর তুই এখানে

মিমিঃনেহা দেখনা রনি আমার সাথে কেমন মিথ্যা কথা বলছে(কান্না মাখা হাসি দিয়ে)
নেহাঃকেমন
মিমিঃবলছে আমাকে নাকি সে এতদিন ভালোই বাসেনি
নেহাঃ……..(আজ নিজে অনেক অপরাধি লাগছ)
আমিঃনেহা তুই মিমিকে নিয়ে যা ও পাগল হয়ে গেছে
মিমিঃহ্যা হ্যা আমি পাগল হয়েছি। তোমার প্রেমে আমি পাগল হয়ে গেছি। তুমি কেন বুঝতে পারছো না। তোমাকে ছাড়া আমি থাকতে পারব না
আমিঃ(কি করব বলো আমিও তো চাইনি এই সম্পর্কটা ভাজ্ঞতে কিন্তু ভাগ্যের কি পরিহাস তোমার বাবার জন্য এই সম্পর্ক ভাজ্ঞতে হচ্ছে)
নেহাঃচল মিমি বাড়িতে ফিরতে হবে
মিমিঃআগে রনির কাছ থেকে শুন যে এতক্ষণ যা বলছে সব বানানো মিথ্যা কথা ছিলো
নেহাঃ…….!
আমিঃনা কোনো মিথ্যা কথা বলিনি যা বলছি সব সত্যিই
মিমিঃতাহলে একটা প্রমাণ দাও
আমিঃ(আর কিছু না বলে চলে আসলাম)

তারপর নেহা আর মিমিকে বাড়িতে নিয়ে গেলো
!
আমিঃআমাকে যেভাবেই হক মিমিকে বিশ্বাস করাতে হবে যে আমি মিমিকে না অন্য কাউকে ভালোবাসি।এখন কাকে দিয়ে কাজটা করালে

ভালো হই। হ্যা পেয়েছি লিপিকে সব বুঝিয়ে বললে সে আমার কাজটা করতে পারবে। যেই ভাবা সেই কাজ

তারপর লিপির কাছে ফোন করলাম

আমিঃহেলো
লিপিঃহেলো কে বলছেন
আমিঃআমি রনি
লিপিঃআমি কি স্বপ্ন দেখছি…(খুশি হয়ে)
আমিঃমানে
লিপিঃআমার বিশ্বাস হচ্ছে না তুমি আমার কাছে ফোন করেছো
আমিঃলিপি আমার একটা হেল্প লাগবে
লিপিঃকি হেল্প লাগবে বলো
আমিঃফোনে বলা সম্ভব না
লিপিঃতাহলে কি করতে হবে
আমিঃআজ বিকালে একটু পার্কে দেখা করতে পারবা
লিপিঃতুমি যেখানে যেতে বলবা সেখানেই যেতে পারব
আমিঃতোমাকে অনেক ধন্যবাদ
লিপিঃধন্যবাদ কেন
আমিঃএই যে আমার বিপদে পাশে দাড়ানো জন্য
লিপিঃআমি তোমার যে কোনো বিপদে পাশে থাকব
আমিঃওকে তাহলে বিকাল ৫টাই পার্কে দেখা হচ্ছে
লিপিঃঅকে
আমিঃওকে বাই(বলে ফোন কেটে দিলাম)

( লিপি আমার প্রেমের জন্য পাগল ছিলো।অনেকবারে প্রস্তাব দিয়েছে কিন্তু আমি তার ডাকে সাড়া দেইনি। লিপি কে শুধু ক্লাসমেন্ট ভেবে আসছি। তার ফোন নাম্বার টা আমার কাছে থাকাই যোগাযোগ করতে সুযোগ হলো)

তারপর লিপি পার্কে আসল

আমিঃএসেছো তাহলে (লিপিকে উদ্দেশ্য করে)
লিপিঃনা এসে আর পার আছে
আমিঃবসো এখানে (বেঞ্চে বসতে বললাম)
লিপিঃহুম বলো তোমার কি হেল্প লাগবে

আমিঃশুনো তাহলে (লিপিকে সব বললাম)
লিপিঃকি বলছো এসব
আমিঃহ্যা লিপি সব সত্যিই বলছি মিমির বাবার জন্য আমাকে এই সম্পর্ক ভাজ্ঞতে হচ্ছে
লিপিঃতুমি ভুল করছো রনি মিমিও যে তোমাকে অনেক ভালোবাসে সেটার কি হবে
আমিঃসেটার উত্তর আমার কাছে নেই
লিপিঃতুমি বরং মিমিকে সব দাও
আমিঃসেটা ও পারব না
লিপিঃকেন
আমিঃকারন মিমির বাবা বলতে না করেছে
লিপিঃএখন কি করতে চাচ্ছো
আমিঃমিমির চোখে ভুল ধারণা দিতে হবে যে আমি অনেক খারাপ। আমার সাথে সম্পর্ক ভেজ্ঞে মিমিও ভুল করেনি
লিপিঃবুঝলাম না
আমিঃতোমাকে ছোট একটা নাটক করতে হবে
লিপিঃকেমন
আমিঃশুনো তাহলে (তারপর লিপিকে বুঝিয়ে বললাম যে কাল কলেজে মিমিকে দেখিয়ে এমন একটা ভাব করব আমরা যেন বিশ্বাস করতে বাধ্য হই আমি মিমিকে না লিপিকে ভালোবাসি)
লিপিঃআচ্ছা ঠিক আছে তুমি যখন বলছো তাই হবে
আমিঃকি বলে যে তোমাকে ধন্যবাদ দিবো
লিপিঃধন্যবাদ দিতে হবে না। একটু তোমার জন্য করতেই পারি।

…..
[চলবে..]

নতুন ভিডিও গল্প!


Tags: , ,